চুয়েট-কুয়েট-রুয়েটে স্নাতক প্রথম বর্ষের ওরিয়েন্টেশন ৩১ জুলাই

তানবির আহমেদ চৌধুরীঃ

প্রকৌশল গুচ্ছের তিন বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) স্নাতক প্রথম বর্ষের (২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষ) ওরিয়েন্টেশনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

আগামী ৩১ জুলাই সদ্য ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন হবে বলে জানা গেছে। গত ৬ জুন প্রকৌশল গুচ্ছের ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইটে প্রকাশিত চতুর্থ ধাপের ভর্তি সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এ দিন একই সাথে তৃতীয় ধাপে ভর্তির পর মেধাস্থান এবং পছন্দক্রম অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগ নির্ধারিত একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়।

তালিকা অনুযায়ী, মোট ৩১১০ টি আসনের বিপরীতে বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি হয়েছেন ৩০৪৫ জন শিক্ষার্থী। এখনো ফাঁকা রয়েছে ৬৫টি আসন। তন্মধ্যে চুয়েটের নগর ও পরিকল্পনা অঞ্চল বিভাগে ৮টি, রুয়েটের নগর ও পরিকল্পনা অঞ্চল বিভাগে ৩৪টি, কুয়েটের লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ১১টি এবং নগর ও পরিকল্পনা অঞ্চল বিভাগে ফাঁকা রয়েছে ১২টি আসন।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের প্রকাশিত মেধা তালিকা অনুযায়ী গত ৮, ৯ ও ২৯ মে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। তৃতীয় ধাপে ভর্তির পরও আসন পূরণ না হওয়ায় চতুর্থ ধাপে ভর্তির জন্য মেধাক্রমের ৫৮০১ থেকে ৬৫০০ পর্যন্ত মোট ৭০০ জন শিক্ষার্থীকে ডাকা হয়েছে। আগামী ৩ জুলাই তাদেরকে স্ব স্ব ভর্তি কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিরীক্ষা কমিটির কাছে জমা দিতে হবে। এ দিন সকাল সাড়ে ৯টা হতে বেলা তিনটা পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম চলবে। নিরীক্ষা কমিটির নিকট উপস্থিত প্রার্থীদের আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ভর্তি করা হবে। এক্ষেত্রে আসন সংখ্যার বেশি প্রার্থী উপস্থিত হলে অতিরিক্ত প্রার্থীদের নিয়ে মেধাক্রম অনুযায়ী একটি অপেক্ষমান তালিকা সংগ্রহ করা হবে। পরবর্তীতে উক্ত তালিকা হতে আসন খালি হওয়া সাপেক্ষে অপেক্ষমান প্রার্থীদের ভর্তির জন্য পর্যায়ক্রমে ডাকা হবে।

ভর্তি কার্যক্রম চুয়েট, রুয়েট ও কুয়েট কেন্দ্রে একযোগে অনুষ্ঠিত হবে। প্রার্থী যে কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন উক্ত কেন্দ্রেই উপস্থিত হয়ে ভর্তির জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। নিরীক্ষা কমিটি দ্বারা প্রার্থীদের সনদপত্র যাচাইপূর্বক জমাদান পরবর্তী স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে। প্রার্থীদের মেধাস্থান এবং পছন্দক্রম অনুসারে বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভাগ নির্ধারণ করা হবে যা ভর্তির দ্বিতীয় দিন (৪ জুলাই) সকাল ১০টার মধ্যে ভর্তি সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। প্রাপ্ত বিভাগ ও বিশ্ববিদ্যালয় দেখে ভর্তির জন্য নির্ধারিত ১৮ হাজার ৫০০ টাকা সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশিত ব্যাংকে বিকাল ৩টার মধ্যে জমা দিতে হবে। তবে কোনো প্রার্থী স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর ভর্তি ফি কর্তৃপক্ষের অনুমতিক্রমে জমা দিতে পারবেন। টাকা জমা দেয়ার পর পরবর্তীতে আবার বিভাগ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম তালিকা প্রকাশ করা হবে। ভর্তির পরের দিন সকাল দশটা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা অটো মাইগ্রেশন প্রক্রিয়া বন্ধ করতে পারবেন। আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ওরিয়েন্টেশনের পূর্ব দিন পর্যন্ত ভর্তি প্রক্রিয়া চলমান থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ভর্তি কমিটির সভাপতি চুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক সুদীপ কুমার পাল প্রথম আলোকে বলেন, একই সাথে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়েই ৩১ জুলাই ওরিয়েন্টেশন হবে। এক্ষেত্রে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ওরিয়েন্টেশনের তিন দিন আগে পর্যন্ত আমরা ভর্তি নিব। আশা করছি ভর্তির চতুর্থ ধাপেই আসন পূরণ হয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, গত ৩ মার্চ প্রকৌশল গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষা হয়েছে। এ বছর চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) ৯৩১টি, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) ১ হাজার ৬৫টি এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) ১ হাজার ২৩৫টি আসন রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *