ব্রেকিং নিউজ

সংরক্ষণের অভাবে হারিয়ে যাচ্ছে চুয়েটের দুই শহীদের পরিচিতি

শহীদ মোহাম্মদ শাহ হল

শহীদ মোহাম্মদ শাহ হল

শহীদ তারেক হুদা হল

শহীদ তারেক হুদা হল

 

 

 

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

উদ্যোগের অভাবে সংরক্ষণ করা হচ্ছেনা চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(চুয়েট) মুক্তিযুদ্ধে শহীদ দুই শক্ষার্থীদের জীবনী এবং আত্মত্যাগের কাহিনী। চুয়েটের পাঁচটি আবাসিক হলের মধ্যে দুটি হলের নামকরন এই দুজন শহীদের নামানুসারে করা হয়েছে।  একটি  শহীদ মোহাম্মদ শাহের নামানুযায়ী ‘শহীদ মোহাম্মদ শাহ্‌ হল’ এবং আপরটি শহীদ তারেক হুদার নামানুযায়ী ‘শহীদ তারেকহুদা হল’ রাখা হয়েছে। অথচ হলগুলোতে  তাঁদের কোন পরিচিতি কিংবা জীবনী নেই। ফলে দুই শহীদ শিক্ষাার্থীদের বীরত্বগাঁথা কাহিনী জানা হচ্ছেনা শিক্ষার্থীদের।  বিভিন্ন বর্ষের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে এই দুজন শহীদ সম্পর্কে প্রশ্ন করলে তারা কিছুই বলতে পারেনি। শহীদদের জীবনী সম্পর্কে জানতে এই দুটি হলের অফিসে যোগাযোগ করা হলে তেমন কিছুই জানাতে পারেনি হল কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয় লোকমুখে বিভিন্ন গল্পশুনে অনেকেই ভুল তথ্য পাচ্ছেন। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটেও তেমন কোনো তথ্য নেই। শুধু বলা আছে তার মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান বলেন, ‘চুয়েটের এ দুই শহীদ আমাদের গর্ব কিন্তু তাঁদের সম্পর্কে আমারা কিছুই জানি না । হল কর্তৃপক্ষের উদ্যোগ নিয়ে শিক্ষার্থীদের সামনে এদের পরিচিতি তুলে ধরা উচিৎ। ’

এ ব্যাপারে চুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. জাহাঙ্গীর আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘আনেক আগেই এই দুজন শহীদ শিক্ষার্থীর তথ্য সংগ্রহ করা হলেও নথি আকারে হলে প্রকাশ করা হয়নি। অতি দ্রুত শহীদদের জীবনী নথি আকারে হলে দিয়ে দেয়া হবে।’

তারিখ -৬.৪.২০১৫