ব্রেকিং নিউজ

মেহেরীনের চিকিৎসা সহায়তায় চুয়েটে সাহিত্য উৎসবের আয়োজন

চুয়েটনিউজ২৪ডেস্ক:

মেহেরীন ইসলাম ! স্বপ্ন ছিল উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে একদিন দেশবরেণ্য প্রকৌশলী হবে ! অনেককে টপকিয়ে এডমিশন টেষ্টে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) পড়ার সুযোগ মিলেছিল। কিন্তু ভর্তির তারিখের ঠিক কয়েকদিন আগে তার জীবনে নেমে আসে এক অশনীবার্তা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সিড়িতেও পা ফেলার ঠিক কয়েকদিন আগে তার স্বপ্ন থমকে গেছে কিডনি ফেইলিউর-এর কাছে। তার দুটো কিডনিই স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক ছোট।  

তার চিকিৎসা সহায়তার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) এর সাহিত্য বিষয়ক সংগঠন ভাষা ও সাহিত্য সংসদ কর্তৃক শুরু হতে যাচ্ছে  “আত্ম অন্বেষণে -সাহিত্য উৎসব ২০২০” নামক প্রতিযোগিতা। যেখানে প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রেশন ও কনটেন্ট ড্রপিং এর সমস্ত অর্থ বহন করা হবে মেহেরীনের চিকিৎসা ব্যয়ে।

মোট সাতটি ক্যাটাগরিতে অনুষ্ঠিত হবে প্রতিযোগিতাটি। বিষয়বস্তু হিসেবে থাকছে কবিতা, আবৃত্তি, ছোটগল্প, প্রবন্ধরচনা, ভ্রমনকাহিনী, স্মৃতিচারণ, বুক অথবা মুভি রিভিউ। কন্টেন্ট পাঠানোর শেষ তারিখ আগামী ২৮ জুলাই ২০২০ পর্যন্ত।

তিনটি ধাপে বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে। সংগঠনটির বিচারিক কমিটি, পাবলিক রিভিউ এবং শিক্ষকদের মধ্য থেকে করা কমিটির মাধ্যমে চূড়ান্ত বিজয়ীদের নির্বাচিত করা হবে।  প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী এবং বিজয়ীদের জন্য  রয়েছে ভাষা ও সাহিত্য সংসদ এর অফিসিয়াল সার্টিফিকেট ও আকর্ষনীয় পুরষ্কার।

এ ব্যাপারে কথা জানতে চাইলে সংগঠনটির সভাপতি ফরহাদ শাহী আফিন্দী চুয়েটনিউজ২৪ কে জানান,ভাষা ও সাহিত্য সংসদ, চুয়েট প্র‍তিষ্ঠাতাকালীন সময় থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক পড়াশোনার বাইরে ভাষা ও সাহিত্য চর্চার প্ল্যাটফর্ম হিসেবে কাজ করছে। এই মহামারীর  সময়ে আমরা ১ম ‘অন্বেষণে সাহিত্য উৎসব ২০২০’ এর আয়োজন করেছি। এতে চুয়েটের পাশাপাশি বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করছে। অংশগ্রহণকারীদের রেজিস্ট্রেশন ফ্রি এর সম্পূর্ণ অর্থ দেওয়া হবে ১৯ ব্যাচের ‘মেহেরিন’ এর চিকিৎসার জন্য।

পুরো আয়োজনের মিডিয়া পার্টনার হিসেবে থাকবেন চুয়েটনিউজ২৪ডটকম।

উল্লেখ্য, চুয়েট ভর্তি পরীক্ষা ২০১৯ এর ভর্তি পরীক্ষার্থী মেহেরীন ইসলাম। যার মেরিট পজিশন ৩৫৫৫ ছিলো৷ কিন্তু কিডনি ফেইলর সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার ফলে তার জীবন আজ সংকটাপন্ন। সুস্থতা ধরে রাখতে পারলে সে চুয়েট ১৯ আবর্তের একজন শিক্ষার্থী হতো৷ সবকিছু মিলিয়ে প্রায় ৪০ লাখ টাকা খরচ হবে তার চিকিৎসা বাবদ। ইতোমধ্যে তার বাবা একটা কিডনি দান করবেন বলে খবর পাওয়া গেছে। উক্ত প্রতিযোগিতা থেকে প্রাপ্ত অর্থ সরাসরি মেহরিনের চিকিৎসা তহবিলে প্রেরন করা হবে ।

প্রতিযোগিতার নিয়মাবলি এবং কন্টেন্ট পাঠানোর লিংকঃ
ক্লিক করুন

ফেসবুক ইভেন্ট লিংকঃ
ক্লিক করুন