ব্রেকিং নিউজ

ধীরে এগুচ্ছে চুয়েটের ‘স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার কমপ্লেক্স’ এর কাজ

All-focus

চুয়েটনিউজ২৪ডেস্কঃ

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘নব্য নির্মিত’ স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার কমপ্লেক্স এর নির্মাণকাজ চলছে অত্যন্ত ধীর গতিতে। বহুল প্রতীক্ষিত ভবনটির পুনঃ নির্মাণকাজ ২০১৮ সালের ২০ মার্চ শুরু হয়ে এক বছর পার হলেও এখনো শেষ হয়নি।

সরেজমিনে দেখা যায়, চারতলা পর্যন্ত ঢালাই ও দেয়ালের কাজ শেষ হলেও এখনো আস্তরণ, দরজা জানালা ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক অধিকাংশ কাজই বাকি। শ্রমিকরা কাজ চালিয়ে গেলেও পরিপূর্ণ কাজ কবে শেষ হবে সে বিষয়ে সন্দিহান শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মুশফিকা রহমান বলেন, স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার কমপ্লেক্স শিক্ষার্থীদের অনেক দিনের আশা। আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীরা চাই যাতে এর কাজ সুন্দরভাবে দ্রুত সম্পন্ন হউক।

একই বর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, কমপ্লেক্সের কাজ এগিয়ে যাচ্ছে এটা ঠিক। কিন্তু আমরা আশা রাখি যাতে দ্রুত সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কাজ সম্পন্ন হবে।

All-focus

এদিকে আগামী জুন মাসেই কমপ্লেক্সের কাজ শেষ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। তিনি বলেন, স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার কমপ্লেক্স এর কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। জুন মাসেই শিক্ষার্থীদের কাছে বুঝিয়ে দেয়ার কথা। আশা করছি এর মধ্যেই কাজ সম্পন্ন হবে।

কমপ্লেক্সে কি কি থাকছে? এমন প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য বলেন, ক্যান্টিনগুলো এখানে স্থানান্তর করা হবে। বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের অফিস থাকবে। পাশাপাশি একটা ব্যাংক ও এটিএম বুথ আনার চেষ্টা চলছে। মহিলা কর্মজীবীদের জন্য বেবি কেয়ার সেন্টারের জন্যও একটি রুম বরাদ্দ থাকবে।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালের মার্চে কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ণ প্রকল্পের আওতায় প্রথম ধাপে এই কমপ্লেক্সটির জন্য এক কোটি ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ ছিল। বরাদ্দের এই টাকা দিয়ে শুধু ভিত্তিটাই গড়ে ওঠে। এর পর গেল বছরের মার্চে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম ‘চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন’ শীর্ষক প্রকল্পে এর উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।