ব্রেকিং নিউজ

চুয়েট শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

চুয়েটনিউজ২৪.ডেস্ক

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (চুয়েট) চুয়েট শিক্ষক সমিতি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ ও পদোন্নতিতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক প্রস্তাবিত অভিন্ন নীতিমালা বাতিল এবং অনুপার্জিত ইনক্রিমেন্ট পুনর্বহালের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ।

০৪ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে এ
মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

সারাদেশের প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের শিক্ষক সমিতি একযোগে একই সময়ে
উক্ত মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

মানববন্ধনে অবিলম্বে ইউজিসি কর্তৃক প্রস্তাবিত অভিন্ন নীতিমালা বাতিল এবং দেশের প্রকৌশল
শিক্ষার শিক্ষকবৃন্দের মেধারপুরষ্কার ও উচ্চশিক্ষায় প্রণোদনামূলক অগ্রিম বেতনবৃদ্ধি (ইনক্রিমেন্ট)
পুনর্বহাল রাখার দাবি জানানো হয়।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন কর্তৃক প্রস্তাবিত নীতিমালা প্রণয়ন প্রক্রিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্বশাসনের সম্পূর্ণ পরিপন্থী বলে মনে করেন শিক্ষকরা। মেধাবী স্নাতকদের শিক্ষকতা পেশায় প্রবেশের পথও রুদ্ধ হবে বলে মনে করেন চুয়েট শিক্ষক সমিতি যা প্রকৌশল শিক্ষার মানের অবনতি ঘটাবে বলে তাদের দৃঢ় মনোভাব। পিএইচডি ডিগ্রীধারী শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে এক বছরের সক্রিয় শিক্ষকতার যে বিধান রাখা হয়েছে তার ফলে বিদেশে উচ্চতর ডিগ্রী অর্জনের পর মেধাবী শিক্ষার্থীরা দেশে ফিরে আসার প্রতি অনীহা সৃষ্টি হবে বলে শিক্ষকরা মনে করেন।

সামনে কোনো বড় কর্মসূচি পালন করবেন কিনা সে ব্যাপারে চুয়েট শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. জিএম সাদিকুল ইসলাম জানান , এই মুহূর্তে সামনে কোনো কর্মসূচির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। যদি কর্মসূচির প্রয়োজন পড়ে তবে বাংলাদেশের ৫টি প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় সম্মিলিতভাবে সিদ্ধান্ত নিব।

মানববন্ধনে চুয়েট শিক্ষক সমিতির সাবেক নেতৃবৃন্দ, বর্তমান নেতৃবৃন্দসহ সকল সাধারণ শিক্ষকমন্ডলী স্বতঃস্ফুর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন। এ সময়শিক্ষকদের দাবির সাথে একাত্বতাপোষণ করে চুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলমও মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।
তাং: ০৫/০৯/২০১৯