ব্রেকিং নিউজ

চুয়েটে ৫ ডিসেম্বর সমাবর্তন এবং ৬ ডিসেম্বর সুবর্নজয়ন্তী

চুয়েটনিউজ২৪ডেস্কঃ

চট্টগ্রাম  প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) ৪র্থ সমাবর্তন অনুষ্ঠান ও পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে সুবর্ন জয়ন্তী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আগামী ৫ এবং ৬ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার) পর পর দুইদিন এই অনুষ্ঠান চলমান থাকবে।

এ আয়োজন উপলক্ষে ১১নভেম্বর (সোমবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স কক্ষে উপাচার্য ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম এর সভাপতিত্বে সকল উপ-কমিটির সভাপতিদের সমন্বয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভা পরবর্তী জানানো হয় সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।এতে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাবেক  সভাপতি অধ্যাপক আজাদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন  শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের  সভাপতি  অধ্যাপক কাজী শহীদুল্লাহ। এছাড়া  সমাবর্তন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন চুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম।

চুয়েটে সর্বশেষ ২০১৬ সালের মার্চ মাসে তৃতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়। ২০১৬ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৯ সালের ১ নভেম্বর পর্যন্ত স্নাতক করা প্রায় আড়াই হাজার  শিক্ষার্থীদেরকে সমাবর্তন ডিগ্রী প্রদান করা হবে।

সমাবর্তনের পরদিন আগামী ৬ই ডিসেম্বর (শুক্রবার) প্রতিষ্ঠাকাল ১৯৬৮ সাল থেকে যাত্রা শুরু করে সুদীর্ঘ এক পথ পাড়ি দিয়ে এর মধ্যে পঞ্চাশের কোটা পার করা এই গৌরবান্বিত অর্জনকে স্মরণীয় করে রাখতে সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে দেশ-বিদেশের নানা অতিথি, মন্ত্রী পরিষদের সদস্য সহ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশকৃত প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী এবং চুয়েট পরিবারের বর্তমান সদস্য মিলে প্রায় ১০ হাজার লোকের মিলনমেলা বসতে পারে।

সুবর্ণজয়ন্তীর  আয়োজনে থাকবে আইইবি এর চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকে নগরজুড়ে আনন্দ শোভাযাত্রা, মেজবান, স্মৃতিচারণীয় কথামালা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

উক্ত অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ হলো জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী জেমস ও নগরবাউলের কনসার্ট।

তারিখঃ ১২.১১.২০১৯