ব্রেকিং নিউজ

চুয়েটে বিজয়া-সম্মিলনী ও দীপাবলি উৎসব উদযাপিত

চুয়েটনিউজ২৪ডেস্ক:

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) সনাতন ধর্ম পরিষদ ও চুয়েট পূজা উদযাপন কমিটির উদ্যোগে বিজয়া সম্মেলনী ও দীপাবলি উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। ২৭ অক্টোবর (রবিবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ব গ্যালারীতে আয়োজিত এ আলোচনা সভায় সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপক ড. রনজিৎ কুমার সুত্রধর।

স্থাপত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কানু কুমার দাশের সঞ্চালনায় সভায় স্বাগত ভাষণ প্রধান করেন ধর্ম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. সুদীপ কুমার পাল। এতে আরও বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. স্বপন কুমার পালিত, অধ্যাপক ড. আশুতোষ সাহা, অধ্যাপক ড. কৌশিক দেব, অধ্যাপক ড. সজল চন্দ্র বণিক, অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল কুমার দেব, ড. স্বপন কুমার রায়, প্রকৌশলী অচিন্ত্য চক্রবর্তী, সুকোমল বিকাশ শীল এবং ছাত্রদের পক্ষ থেকে জয়ন্ত দাশ।

আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, দূর্গোৎসব আমরা বিভিন্নজন বিভিন্ন জায়গায় উদযাপন করলেও আজকে বিজয়ার শুভেচ্ছা বিনিময়ের মাধ্যমে আমরা আমাদের ভ্রাতৃত্ববোধ বৃদ্ধি করার একটা সুযোগ তৈরী হয়েছে। ন্যায়ের জয় আর পারলৌকিক আঁধার সরিয়ে ফেলার কামনায় আমরা আজ দীপাবলি উৎসবও করছি। সকল ধর্মের মূল উদ্দেশ্যই হলো ধর্মচর্চার মধ্যে দিয়ে সৎ মানুষ হয়ে সৎভাবে জীবন যাপন করা। জাতি, ধর্ম, বর্ন নির্বিশেষে সব সম্প্রদায় সম্মিলিত ভাবে সুষ্ঠুভাবে ধর্ম পালন করার মধ্যে দিয়ে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মানে ভুমিকা রাখা প্রয়োজন।

এছাড়া চুয়েটে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের জন্য একটি মন্দির সহ প্রার্থনা হল নির্মাণে ছাত্র, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পক্ষ থেকে প্রশাসনের প্রতি পূনরায় আহবান জানানো হয়।

পরিশেষে বিশ্ববাসীর মঙ্গল কামনায় চুয়েট পূজা কমিটি কর্তৃক গোলচত্বরে ব্যাপক মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্জ্বলন, আতশবাজি ও ফানুশ উড়ানো হয়। এ সম্পর্কে চুয়েট পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি যন্ত্রকৌশল বিভাগের অভিষেক অভি জানান, ক্যাম্পাসের সকল ছাত্রছাত্রীদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণে উদযাপিত এই আলোক প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে ছাত্রছাত্রীরা প্রদীপ ও ফানুশ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে সকল অন্যায় অপচারের অবসান ঘটানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। আশা করি উদযাপনের এই ধারা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।